পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম 2023

4/5 - (2 votes)

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম এ সর্ম্পকিত বিষয়গুলো আজকে আপনারা এই আর্টিকেলের মাধ্যমে জানতে পারবেন। আপনারা এই বিষয়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। নিচে এ সর্ম্পকে বিস্তারিত ধারনা  আলোচনা করা করা হলো।

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম

আপনারা সকলেই জানেন যে সরকার বর্তমানে সকল পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু অনেকেই জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম সর্ম্পকে সঠিক তথ্য জানেন না। সাধারণত সাধারন জনগণের হয়রানি কমাতে এই উদ্যেগটি নেওয়া হয়েছে। আর এই জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত সকল কার্যক্রম সরকার দ্বারা নির্ধারিত একটি ওয়েবসাইট থেকে পরিচালনা করা হচ্ছে। যেখানে সব তথ্য আপলোড করা হচ্ছে এবং এর মাধ্যমে প্রত্যেক মানুষ তার জন্ম সনদ সম্পর্কে অনুসন্ধান করে জানতে পারছে সর্বশেষ আপডেট।

এই উদ্যেগটি নেওয়ার মধ্যে দিয়েই বর্তমানে অনেকেই ডিজিটাল সনদ পেয়েছেন যা কিনা সরকার কর্তৃক আমাদেরকে প্রদান করা হয়েছে। তাই আপনারা যারা এখনও জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করেননি তারা অবশ্যই অনলাইন করে নিবেন। কেননা পুরাতন জন্ম নিবন্ধন বাতিল হয়ার আপনার ওই সনদ কোন কাজে আসবে না ফলে হয়রানির শিকার হবে।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা কেন প্রয়োজন?

দৈনন্দিন জীবনে বর্তমান সময়ে আমাদের জন্ম নিবন্ধন একটা বাধ্যতামূলক নথি। কেননা অফিস আদালত বা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে প্রায় সব জায়গায়ই আমাদের জন্ম নিবন্ধন প্রয়োজন হয়। জাতীয়তা প্রাথমিকভাবে যাচাইকরণের জন্য আমাদের সকলেরই জন্ম নিবন্ধন আবশ্যক। আপনার জন্ম নিবন্ধনের তথ্যের উপর ভিত্তি করে আপনাদের আইডি কার্ড করা হয়। তাই জন্ম নিবন্ধনের তথ্যাদি আপনার নাগরিকতা অর্জনের ক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন থাকা খুবই প্রয়োজন। যেহুতু বর্তমান যোগ তথ্য প্রযুক্তির তাই আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা প্রয়োজন। কেননা এই তথ্য প্রযুক্তির যুগে প্রায় আমাদের সবগুলো নথি যেমন এনআইডি কার্ড, জন্ম নিবন্ধন, পাসপোর্ট সহ যাবতীয় ইনফরমেশন অনলাইনে পাওয়া যায়।

জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইনে না থাকলে কি করবেন?

আপনাদের যাদের জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন করা নেই বা খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না তাদেরকেঅবশ্যই আবার নতুন করে জন্ম নিবন্ধনের জন্য অনলাইনে আবেদন করতে হবে। তানাহলে আপনার অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। কেননা আমদের  জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে এখন এইসকল কাগজপত্রের তথ্য অনলাইনের মাধ্যমে যাচাই করা হয়। তাই আপনার শিক্ষা, সম্পত্তি কিংবা যেকোনো কাজের জন্য তথ্যাবলি অনলাইনে একান্ত প্রয়োজন ।তা না হলে আপনার কোন কাজই সম্পন্ন হবে না।

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার সুবিধাসমূহ

বর্তমানে হাতে লেখা জন্ম নিবন্ধন এর গ্রহন যোগ্যতা নেই। তাই পুরাতন জন্ম নিবন্ধন দিয়ে কিছুই করা যায় না। তাই আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ ডিজিটাল / অনলাইন করতে হবে। যাতে অনলাইনে সার্চ করলে আপনার জন্ম নিবন্ধন যাচাই করা যায়। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার মাধ্যমে আপনি অনেক সুবিধা পাবেন। যেমন, আইডি কার্ড, পাসপোর্ট ইত্যাদি বড় বড় জায়গায় অনলাইন করা জন্ম নিবন্ধন ছাড়া কোন প্রকার কাজ করতে পারবেন না। এছাড়াও সরকারী প্রায় আরো ২০ টির ও বেশি সেবা নিতে পারবেন অনলাইন জন্ম সনদ দিয়ে।

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল করতে কি কি লাগে

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম
পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল করতে যা যা লাগে তা নিচে দেওয়া হলো-

  • আপনার পুরাতন জন্ম নিবন্ধন থাকলেও জন্মনিবন্ধনের এক কপি ফটোকপি।
  • যদি আপনার ভোটার আইডি কার্ড তৈরি হয়ে থাকে তবে ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি।
  • যদি আপনার ভোটার আইডি কার্ড না হয়ে থাকে তবে আপনার স্কুল সার্টিফিকেট প্রদান করতে হবে।
  • সেই সাথে পরিবারের সদস্য বিশেষ করে বাবা অথবা মায়ের ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি প্রদান করতে হয়।
  • আপনার জন্ম ২০০০ সন বা তার পূর্বে হয়ে থাকে, তাহলে আপনার বাবা মায়ের জন্ম নিবন্ধন থাকা বাধ্যতামূলক নয়। এক্ষেত্রে আবেদনের সময় পিতা-মাতার নাম লিখে দিতে পারবেন।

এখান আপনার বর্তমান ঠিকানা যদি নতুন হয় তাহলে কি করবেন ? সেক্ষেত্রে আপনার বর্তমান ঠিকানা নতুন হলেও আপনার পুরনো জন্ম নিবন্ধনে বর্তমান ঠিকানা ছিল তাই এখানে বর্তমান ঠিকানা হিসেবে উল্লেখ করতে হবে।

আরও জানুনঃ তামিম ইকবাল কত টাকার মালিক 2023

শেষ কথা

আজকের এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়মসর্ম্পকে জেনেছেন। এছাড়াও যদি এ সর্ম্পকে কোনোরকম প্রশ্ন আপনাদের মনে থেকে যায় তাহলে আপনারা অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে তা আমাদের জানাবেন। আমরা চেষ্টা করব এ সর্ম্পকে আপনাদের আরও তথ্য জানাতে।

error: Content is protected !!
Scroll to Top